ছিনতাইকারী নারী টিকটকার গ্রেফতার

  |  শনিবার, জুলাই ৩১, ২০২১ |  ৩:১০ অপরাহ্ণ
       

বশির আলমামুন
চট্টগ্রামের ‘প্রথম’ নারী ছিনতাইকারী হিসেবে পরিচিত ফারজানা বেগম নামে এক টিকটকারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ৩০ জুলাই, শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর ডবলমুরিং থানার আগ্রাবাদ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার স্বামী রুবেল মাত্র ২দিন আগে এলজি ও ছুরিসহ গ্রেফতার হয়েছিলেন। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ১১টি মামলা রয়েছে। তারা স্বামী-স্ত্রী মিলেই একটি ছিনতাই চক্র গড়ে তুলেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরিচিত তিনি টিকটকার হিসেবে।মূলত ঠিকানা জিজ্ঞেস করার ছুতোয় পথচারীকে থামিয়ে তার সর্বস্ব কেড়ে নেন তারা। আর এ কৌশলের মূল অভিনেতা ফারজানাই।
ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, ফারজানা টিকটক ও লাইকি করে। কিন্তু সে মূলত একজন ছিনতাইকারী, খুবই দুধর্ষ কিশোরদের নিয়ে তার নিজস্ব একটি ছিনতাইকারী দলও আছে। সে ছেলে ও মেয়েদের কাছ থেকে আলাদা কৌশলে ছিনতাই করে। একা চলাচলরত কোনো ছেলেকে প্রথমে টার্গেট করে। এরপর ঠিকানা জিজ্ঞেস করার নামে তাকে থামায়। থামলেই ছুরি দেখিয়ে তার কাছে থাকা টাকা ও মোবাইল দিয়ে দিতে বলে। নতুবা তার বিরুদ্ধে ‘ইভটিজিং’ ও ‘যৌন হেনস্থার’ অভিযোগ আনার হুমকি দেয়। এতে ভয়ে সবকিছু দিয়ে দেয় ছেলেরা। আর মেয়েদেরও ঠিকানা জিজ্ঞেস করার ভান করে থামায়। এরপর ছোরার ভয় দেখিয়ে সব ছিনিয়ে নেয়।
ফারজানার স্বামী রুবেল মাত্র ২ দিন আগে এলজি ও ছোরাসহ গ্রেফতার হয়েছিলো। এখন সে রিমান্ডে আছে। ১১ মামলার আসামি রুবেল বর্বর প্রকৃৃতির ছিনতাইকারী। সে মেয়েদের গলার চেইন, কানের দুল ছিনতাই করে। এক্ষেত্রে অনেক সময়ই কান ছিড়ে যায়, গলা কেটে যায়।