প্রধানমন্ত্রীর এসডিজি পুরস্কার অর্জন ও জন্মদিনে ইডিইউতে দু’দিনের অনুষ্ঠানমালা উদ্বোধন

 নিজস্ব প্রতিবেদক |  মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১ |  ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ
       

এসডিজি অগ্রগতি পুরস্কার অর্জনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির (ইডিইউ) উপাচার্য অধ্যাপক মু. সিকান্দার খান বলেছেন, দারিদ্র্য দূরীকরণ, বৈশ্বিক সুরক্ষা, শান্তি ও সমৃদ্ধি নিশ্চিতে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশকে বিশ্বে রোলমডেলে পরিণত করার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বঙ্গবন্ধুকন্যা যে দৃষ্টান্তস্থাপন করেছেন, তা অতুলনীয় এবং অনুসরণীয়।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষ্যে ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি আয়োজিত দু’দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধনকালে উপাচার্য এসব কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আজ ২৭ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকেল ৪টায় জন্মদিনের কেক কাটার মাধ্যমে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। প্রথম দিনের অনুষ্ঠানে কেক কাটার পাশপাশি প্রধানমন্ত্রীর অর্জন ও অবদান নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় দিনের অনুষ্ঠানমালায় আছে বৃক্ষরোপণ অভিযান ও ‘শেখ হাসিনা: অ্যা ডটার্স টেল’ চলচ্চিত্র প্রদর্শনী।
মহান মুক্তিযুদ্ধে আন্তর্জাতিক জনমত গঠনের অন্যতম সংগঠক, যুক্তরাজ্যের লিডসে মুক্তিযুদ্ধকালীন বাংলাদেশ লিবারেশন ফ্রন্টের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক মু. সিকান্দার খান এ সময় আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের প্রতিফলন আজ বাংলাদেশের সর্বক্ষেত্রে দৃশ্যমান। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রতিষ্ঠিত ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটিও বিশ্বমানের শিক্ষাবিস্তার ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার এ অগ্রযাত্রায় সামিল। আমাদের চেয়ারম্যান, প্রাক্তন মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল নোমানসহ কয়েকজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের সন্তানরা প্রতিষ্ঠা করেছে এ বিশ্ববিদ্যালয়। তাদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও সরকারের ভিশন সামনে রেখে এগিয়ে যাচ্ছে ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি।
এতে সভাপতির বক্তব্যে ইডিইউর কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক সামস-উদ দোহা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরেন। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিলো বাংলাদেশ সারাবিশ্বের অন্যতম উন্নত রাষ্ট্র হয়ে উঠবে। আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের দেশ সে লক্ষ্যেই এগিয়ে চলছে। এমডিজি অর্জন, এসডিজি বাস্তবায়ন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, লিঙ্গ সমতা, কৃষি, তথ্য-প্রযুক্তি, বিদ্যুৎসহ নানা অর্থনৈতিক সূচকে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে দ্রুতগতিতে।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার সজল কান্তি বড়ুয়া, স্কুল অব বিজনেসের অ্যাসোসিয়েট ডিন অধ্যাপক ড. মু. রকিবুল কবির, স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অ্যাসোসিয়েট ডিন অধ্যাপক ড. মু. নাজিম উদ্দিন, স্কুল অব লিবারেল আর্টসের অ্যাসোসিয়েট ডিন মু. শহিদুল ইসলাম, প্রক্টর মো. আসাদুজ্জামানসহ সকল ফ্যাকাল্টি মেম্বার ও কর্মকর্তাবৃন্দ।