বর্ণ্যাঢ্য আয়োজনে উইম্যান চেম্বার পালন করল জননেত্রী নেত্রী শেখ হাসিনা’র ৭৫ তম জন্মদিন

 নিজস্ব প্রতিবেদক |  সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১ |  ১০:১৫ অপরাহ্ণ
       

চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর উদ্যোগে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পালন করা হয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী নেত্রী শেখ হাসিনা’র ৭৫তম জন্মদিন। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল ০৪ ঘটিকায় হোটেল আগ্রবাদের ইছামতি হলে উইম্যান চেম্বার এর পরিচালক ও সদস্যবৃন্দরা সমবেত হয়ে এই অনুষ্ঠান উদ্যাপন করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামীলীগ এর সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন চৌধুরী। অনুষ্ঠান মালার মধ্যে ছিল বেলুন উড়ানো, আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল, কেক কাটা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও বিভিন্ন ইনডোর গেমস্। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি, ঈডঈঈও এর পরিচালক ও সদস্যবৃন্দ সমবেতভাবে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন। ঈডঈঈও এর প্রেসিডেন্ট ইন-চার্জ ও সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট আবিদা মোস্তফার সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র দীর্ঘ সফল কর্মময় জীবনের উপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে আলোচকরা বলেন স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে একাত্তরে আমরা এদেশে স্বাধীনতা পেয়েছিলাম। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বিগত বার বছর পূর্বে দেশের হাল ধরে এদেশের সাধারণ জনগণের জীবন-মান উন্নয়ন, অর্থনৈতিক মুক্তি, সামাজিক ব্যবস্থার উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়ন, নারী অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং উদ্যোক্তা নারীদের কর্মকান্ডে গতিশীলতা আনতে একনিষ্ঠভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনকালে বিগত সময়ে তার একনিষ্ঠ কর্মকান্ডের স্বীকৃতি স্বরূপ গ্লোবাল সামিট অব উইমেন কর্তৃক “গ্লোবাল উইমেনস লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড”, আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে ‘লাইফ টাইম কন্ট্রিবিউশন ফর উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’, নারীর ক্ষমতায়নে অসামান্য অবদানের জন্য ইউএন উইমেন কর্তৃক ‘এজেন্ট অব চেঞ্জ’ পুরস্কার ও ‘প্লানেট ৫০-৫০ চ্যাম্পিয়ন’ এ্যাওয়ার্ড, বিশ্বের সর্বোচ্চ পরিবেশ বিষয়ক পুরস্কার ‘চ্যাম্পিয়নস অব দ্য আর্থ’ পুরস্কার, আইসিটির ব্যবহার প্রচারণার জন্য ‘আইসিটি সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’, নারী শিক্ষা প্রসারের জন্য ‘ট্রি অব পিস’, জাতিসংঘ থেকে শুরু করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও বড় বড় সংস্থা ইউনেস্কো, ইউনিসেফ, এমনকি মধ্যপ্রাচ্যের রক্ষণশীল দেশগুলোও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বের প্রশংসার মাধ্যমে আজ তিনি “স্টার অব ইস্ট”, রোহিঙ্গাদের আশ্রয় প্রদানের স্বীকৃতি স্বরূপ পেয়েছেন ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ সম্মান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামীলীগ এর সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন আমরা বাংলাদেশের নারীরা অত্যন্ত সৌভাগ্যবান। জননেত্রী শেখ হাসিনার মত একজন নারী বান্ধব প্রধানমন্ত্রী আমরা পেয়েছি। তাঁর নেতৃত্বে আমরা রূপকল্প-২০৪১ পূরন করবো, ইনশাআল্লাহ্। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রাক্তন মহিলা সাংসদ সাবিহা নাহার বেগম বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের বর্ণনা বলে শেষ করা যাবে না। তাঁর বলিষ্ঠ সিদ্ধান্তের ফলে বিশে^র বড় বড় দাতাদের পাশ কাটিয়ে আজ পদ্মা সেতু দৃশ্যমান। কর্ণফুলীর তলদেশে নির্মান করা হচ্ছে বাংলাদেশের প্রথম টানেল। এভাবে সারা দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে লেগেছে উন্নয়নের ছোঁয়া। সভাপতির বক্তব্যে ঈডঈঈও এর প্রেসিডেন্ট ইন-চার্জ ও সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট আবিদা মোস্তফা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্ম বার্ষিকী উদ্যাপনকালে আমরা প্রার্থনা করি, তিনি যেন দীর্ঘজীবি হউন এবং এদেশে মাটি ও মানুষের উন্নয়নে আরো দীর্ঘ সময় ধরে কাজ করে যেতে পারেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন প্রাক্তন মহিলা সাংসদ ও বিশেষ অতিথি সাবিহা নাহার বেগম। দোয়া মাহফিলের পর সমবেতভাবে কেক কেটে প্রধানমন্ত্রীর ৭৫ তম জন্মদিন পালন করা হয়। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঈডঈঈও এর প্রাক্তন সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট রুহি মোস্তফা, পরিচালক রেবেকা নাসরিন, সদস্য বেবী হাসান। শেষ পর্বে উপস্থিত নারী উদ্যোক্তারা বিভিন্ন ইনডোর গেমস-এ অংশগ্রহন করেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ঈডঈঈও এর প্রাক্তন ভাইস-প্রেসিডেন্ট জেসমিন আক্তার। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক রেবেকা নাসরিন, মোস্তারী মোর্শেদ স্মৃতি, ফেরদৌস ইয়াসমিন খানম, প্রাক্তন পরিচালক কাজী তুহিনা আক্তার, শামীম মোর্শেদ, নূর আক্তার জাহান, সাভিনা ইকরাম সিরাজী, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এর সংরক্ষিত আসনের সদস্য নীলু নাগ এবং চেম্বারের এর সদস্যবৃন্দ।
চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট মনোয়ারা হাকিম আলী সার্বক্ষনিকভাবে অনুষ্ঠানটি তদারক করেন এবং তার তত্বাবধানে পুরো অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয়।