চট্টগ্রাম থেকে অপহৃত শিশু চাঁদপুরে উদ্ধার : গ্রেফতার ৬

 নিজস্ব প্রতিবেদক |  শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১ |  ৫:১৫ অপরাহ্ণ
       

নগরের পাহাড়তলী থানার শাপলা আবাসিক এলাকার একটি বাসা থেকে তিন দিন আগে অপহৃত ১০ মাসের শিশু মোহাম্মদ আকাইদকে চাঁদপুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার রাতে শিশুটিকে উদ্ধার পর বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত মো. ফরহাদ, মো. দুলাল, মো. সবুজ, হালিমা বেগম, আসমা বেগম ও মো. বেলালকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ জানায়, গত ১৪ সেপ্টেম্বর নগরের পাহাড়তলী থানার শাপলা আবাসিক এলাকার ইদ্রিস কলোনির বাসিন্দা জাহানারা বেগম তার ১০ মাস বয়সী শিশু মোহাম্মদ আকাইদকে ঘরে রেখে রান্নাঘরে কাজ করছিলেন। কিছুক্ষণ পর এসে দেখেন, ঘরে শিশুটি নেই। অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে পরদিন পাহাড়তলী থানায় মামলা করেন।
এ ঘটনায় পাহাড়তলী থানাধীন শাপলা আবাসিক এলাকা থেকে মো. ফরহাদ (৪০), মো. দুলাল (৩০) ও মো. সবুজকে (২৫) গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের দেয়া তথ্যমতে হালিশহর থানা এলাকা থেকে হালিমা বেগমকে (২৬) গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা টাকার বিনিময়ে দুগ্ধপোষ্য শিশু সন্তানকে অপহরণ করে চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর থানা এলাকায় হালিমা বেগমের বোন আসমা বেগমের (৩৫) কাছে হস্তান্তর করে ২০ হাজার টাকা নেয়। পরে মতলব উত্তর থানার পুলিশের সহায়তায় আসমা বেগমকে (৩৫) গ্রেফতার এবং ১০ মাসের দুগ্ধপোষ্য শিশু সন্তানকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরবর্তীতে পলাতক ব্যক্তি মো. বেলালকে (৩৫) গ্রেফতার করা হয়।

পাহাড়তলী থানার ওসি মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, নিজের ১০ মাসের সন্তান মো. আকাইদকে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন জাহানারা বেগম। সন্তানকে না পেয়ে পরদিন রাতে তিনি পুলিশে অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ। ফুটেজ বিশ্লেষণ করে পরদিন ওই এলাকা থেকে ফরহাদ, দুলাল ও সবুজকে আটক করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যে হালিশহর থেকে হালিমা নামের আরেকজনকে আটক করা হয়।
আটক সবাই মিলে ওই শিশুকে হালিমার বোন আসমার কাছে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করেন। আটক ব্যক্তিদের দেয়া তথ্যে চাঁদপুরের মতলব থেকে ওই শিশুকে উদ্ধার এবং আসমা ও বেলাল নামে দুজনকে আটক করা হয় বলে তিনি জানান।