বিমান পাইলট ক্যাপ্টেন নওশাদ না ফেরার দেশে

 স্লোগান ডেস্ক |  সোমবার, আগস্ট ৩০, ২০২১ |  ১১:১৯ অপরাহ্ণ
       

ভারতের মহারাষ্ট্রের কিংসওয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পাইলট ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইয়ুম মারা গেছেন। শুক্রবার থেকে তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন। একটি উর্ধ্বতন সূত্র এ কথা নিশ্চিত করেছে।
শুক্রবার মাস্কাট থেকে ঢাকাগামী বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট (বিজি-০২২) চালানোর সময় মাঝ আকাশে নওশাদ ‘বড় ধরনের হৃদরোগে’ আক্রান্ত হন। গত চার দিন ধরে তিনি ‘কোমায়’ এবং হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ)-তে ভেন্টিল্যাশন সাপোর্টে ছিলেন।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে সূত্রটি জানায়, ‘তিনি (পাইলট) বেঁচে নেই। ভেন্টিল্যাশন সার্পোটে থাকা অবস্থায় আজ স্বাভাবিকভাবে তিনি মারা যান। পাইলটের পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতেই তার ভেন্টিল্যাটন সাপোর্ট খুলে নেয়া হয়।’
সূত্রটি আরো বলেন, গতকাল থেকেই ‘কোমা’ ও আইসিইউতে ভেন্টিল্যাশন সার্পোটে থাকা পাইলটের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছিল।
তিনি আরো বলেন, নওশাদের পরিবারের সদস্যরা এবং বিমানের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা হাসাপাতালে তার মৃত্যু সনদের জন্য অপেক্ষা করছেন। সনদ পাওয়ার পর ঢাকায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে শীর্ষ কর্মকর্তা আনুষ্ঠানিকভাবে পাইলটের মৃত্যুর কথা ঘোষণা করবেন।
হাসপাতালের অপর এক সূত্র জানায়, পাইলটের লাশটি সম্ভবত হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। প্রয়োজনীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষে লাশটি ঢাকায় পাঠানো হবে। আর এ জন্য কিছু সময় লাগতে পারে।
আইসিইউতে চিকিৎসাধীন পাইলটের চিকিৎসায় একটি উচ্চ-ক্ষমতাসম্পন্ন চিকিৎসক দল গঠন করা হয়। দলটিতে ডিরেক্টর মেডিকেল সার্ভিসেস ডা. শুভ্রজিৎ দাসগুপ্ত, ক্রিটিক্যাল কেয়ার ফিজিশিয়ান ডা. রঞ্জন বারোকার ও ক্রিটিক্যাল কেয়ার ফিজিশিয়ান ডা. বীরেন্দ্র বেলেকার ছিলেন।