বৃষ্টিতে কাটা পাহাড় ধসে পড়ায় ৭ লাখ টাকা জরিমানা

 নিজস্ব প্রতিবেদক |  সোমবার, আগস্ট ৯, ২০২১ |  ৯:৪৩ অপরাহ্ণ
       

চট্টগ্রাম নগরীতে পাহাড় কাটার অভিযোগে চার ব্যক্তিকে ৬ লাখ ৯০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে পরিবেশ অধিদফতর। এক সপ্তাহ আগে ভারী বৃষ্টিতে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় পাহাড়ধস পরিদর্শনে গিয়ে পাহাড় কাটার প্রমাণ পাওয়া যায় বলে অধিদফতরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। রোববার (৮ আগস্ট) পরিবেশ অধিদফতরের চট্টগ্রাম মহানগরের কার্যালয়ে এ সংক্রান্ত শুনানি শেষে তাদের জরিমানা দেওয়ার আদেশ দেন পরিচালক মোহাম্মদ নুরুল্লাহ নুরী। বিভাগীয় পরিবেশ অধিদফতরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নগরীর আকবর শাহ থানার জঙ্গল লতিফপুর এলাকায় শাপলা আবাসিক এলাকা সংলগ্ন পাহাড় কাটার দায়ে নুরুল আলম নামে একজনকে পাঁচ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ ধার্য্য করা হয়েছে। এছাড়াও নগরীর লালখান বাজারের মতিঝর্ণা এলাকায় একটি পাহাড়ের পৃথক দুই অংশ কাটার দায়ে জাহিদুল ইসলাম জাবেদ নামে একজনকে ৫০ হাজার ও সাবিনা বেগম নামে একজনকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া নগরীর খুলশী থানার গরীবউল্লাহ শাহ মাজার এলাকায় আমান উল্লাহ হাউজিং সংলগ্ন পাহাড় কাটার অপরাধে হাজী নুরুল ইসলাম প্রকাশ বার্মা হাজীর স্ত্রী আমিনা বেগমকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম মহানগরের পরিচালক মোহাম্মদ নুরুল্লাহ নুরী বলেন, ‘গত ২৯ জুলাই ও পরদিন ভারী বৃষ্টির মধ্যে চারটি এলাকায় পাহাড়ধসে পড়ে। আমরা সম্প্রতি এলাকাগুলো পরিদর্শন করে সেখানে পাহাড় কাটার প্রমাণ পেয়েছি। কোথাও পাহাড় কেটে প্রায় সমতল করা হয়েছে, কোথাও কিছু অংশ কাটা হয়েছে। খুলশী এলাকায় পাহাড়ের গোড়া কেটে রাখা হয়েছে যাতে বৃষ্টিতে সেটি আস্তে আস্তে ধসে পড়ে। আমরা এসব পাহাড় যারা কাটছে তাদের শুনানিতে ডেকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছি।’
অধিদফতরের উপ-পরিচালক মিয়া মাহমুদুল হক জানান, চট্টগ্রামের কালুরঘাটে পরিবেশ ছাড়পত্র ছাড়া কার্যক্রম পরিচালনার দায়ে ‘কালুরঘাট ডকইয়ার্ড’ নামে একটি প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। প্রত্যেককে সাতদিনের মধ্যে জরিমানার টাকা পরিশোধ করতে বলা হয়েছে