ইউপি সদস্যকে খুনের মামলায় চেয়ারম্যানসহ গ্রেপ্তার ২

ফটিকছড়ির খিরাম ইউনিয়ন পরিষদের এক সদস্যকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেনসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশমঙ্গলবার সকালে চট্টগ্রাম নগরীর পাঁচলাইশ এলাকা থেকে চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাটহাজারী সার্কেল) আবদুল্লাহ আল মাসুমতিনি বলেন, সকালে পাঁচলাইশ এলাকায় এক বন্ধুর বাসা থেকে চেয়ারম্যান সোহরাবকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর আগে গতকাল সোমবার রাতে ফটিকছড়ি থেকে আবুল বশর কোম্পানি নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদেরকে খুনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে

এর আগে সোমবার সকালে ঈমেদর নামাজ শেষে বাড়িতে ফেরার পথে গুলিতে খুন হন খিরাম ইউনিয়ন পরিষদের নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. জব্বার (২৮)

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, গত বছর ফেব্রুয়ারিতে চেয়ারম্যান সোহরাব জব্বারের সঙ্গে বিরোধের সূত্রপাত হয়। সে সময় খিরাম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পান মো. শহীদুল্লাহ। প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের প্রাক্তন ছাত্র সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সোহরাব বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে শহীদুল্লাহকে পরাজিত করেন

নিহত জব্বার চেয়ারম্যানের বিদ্রোহী হিসেবে এলাকায় পরিচিত। এদিকে গত ১৮ মার্চ বাড়ির পাশের বহরম পাড়া জামে মসজিদের সামনে প্রতিপক্ষের গুলিতে আহত হয়েছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব

পূর্ব বিরোধের জের ধরে সোহরাবের অনুসারীরা ইউপি সদস্য জব্বারকে খুন করেছে বলে প্রাথমিক তদন্তে জেনেছে পুলিশ

আপনার ভালো লাগতে পারে এমন আরো কিছু খবর