চট্টগ্রামে দ্বিতীয় ডোজের প্রথমদিন ভ্যাকসিন নিলেন ৪৫৯৮ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক
চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ শুরুর প্রথমদিনে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৪ হাজার ৫৯৮ জন। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) নগরীর ১০টি এবং ১৪ উপজেলার ১৪টি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে করোনার ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় ডোজের সঙ্গে কেন্দ্রগুলোতে প্রথম ডোজের ভ্যাকসিনও দেওয়া হয়েছে বলে সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে।
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের একাডেমিক ভবনের নিচতলায় দ্বিতীয় ডোজের জন্য বুথ স্থাপন করা হয়েছে। দুপুরে সেখানে গিয়ে দেখা গেছে, মোবাইলের মেসেজ ছাড়া কাউকে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে না। কিন্তু প্রথম পর্যায়ের ভ্যাকসিন গ্রহণ শুরুর পর অনেককেই মোবাইলে মেসেজ ছাড়াই ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছিল। তাদের মধ্যে অনেকেই দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিন দিতে গিয়ে হয়রানির শিকার হয়েছেন।
চমেক হাসপাতালের বুথে দায়িত্বরতরা জানিয়েছেন, পর্যায়ক্রমে সবার মোবাইলে মেসেজ পাঠানো হবে। কোনোভাবেই মেসেজ ছাড়া দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে না। তবে চট্টগ্রাম সরকারি জেনারেল হাসপাতালে মোবাইলে মেসেজ ছাড়া শুধুমাত্র ভ্যাকসিনের কার্ড নিয়ে অনেককেই দ্বিতীয় ডোজ নিতে দেখা গেছে। দুই হাসপাতালেই দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার জন্য তেমন ভিড় দেখা যায়নি।
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন, চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক হাসান শাহরিয়ার কবীরসহ কয়েকজন উচ্চপদস্থ ব্যক্তি করোনার দ্বিতীয় ডোজ নেন।
চট্টগ্রামের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আসিফ খান জানিয়েছেন, প্রথমদিনে চট্টগ্রাম মহানগরীতে দুই হাজার ৬৩ জন এবং ১৪ উপজেলায় দুই হাজার ৫৩৫ জন ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন।
সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের হিসেবে, এ পর্যন্ত চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন মোট চার লাখ ৩৫ হাজার ৪১৬ জন। প্রথম ডোজের জন্য এ পর্যন্ত নিবন্ধন করেছেন পাঁচ লাখ ২১ হাজার ১৬৫ জন।

আপনার ভালো লাগতে পারে এমন আরো কিছু খবর