চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে তদন্ত দল ও ফায়ার সার্ভিসের তল্লাশি

বশির আলমামুন
চট্টগ্রাম কেন্দ্রিয় কারাগারে  নিখোঁজ হাজতিকে খুঁজতে কারা অভ্যন্তরে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি দল তল্লাশি চালিয়েছে । সোমবার (৮ মার্চ) দুপুর ১টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রবেশ করে এ তল্লাশি চালায়। হাজতি মো. ফরহাদ হোসেন রুবেল এর সন্ধানে কারাগারের ভেতর ড্রেন ও সেপটিক ট্যাংকগুলোতে তল্লাশি চালানো হয়েছে।
চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের উপ সহকারী পরিচালক জানে আলম বলেন, চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের তিনটি দল দুপর ১ টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত তল্লাশী চালায়। তারা কারাগারের অভ্যন্তরে সব ড্রেন ও সেপটিক ট্যাংকগুলোতে তল্লাশি করে। তবে সেখানে অনেকে অসুস্থ হতে পারে, তাই পরিধি আরও বাড়তে পারে। এদিকে  চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে হাজতি নিখোঁজের ঘটনা তদন্তে কারাগার পরিদর্শন করেছেন তদন্ত দল। সোমবার (৮ মার্চ) ১০টার দিকে কারা কর্তৃপক্ষের গঠিত তদন্ত দল ডিআইজি প্রিজন এর কার্যালয়ে যান। সেখানে কারাগারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। পরে সেখান থেকে কারাগার পরিদর্শনে যান তারা।
প্রসংগত গত শনিবার সকাল থেকে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের কর্ণফুলী ভবনের পানিসম্যান্ট ওয়ার্ডে থাকা হাজতি ফরহাদ হোসেন রুবেল নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় রোববার তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করেন কারা মহাপরিদর্শক। তদন্ত দলে প্রধান করা হয় খুলনা বিভাগের কারা উপ-মহাপরিদর্শক ছগির মিয়াকে। অন্য দুই সদস্য হলেন- ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কারাগারের সুপার ইকবাল হোসেন ও বান্দরবান জেলা কারাগারের ডেপুটি জেলার ফোরকান ওয়াহিদ। তাদের সাত কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। নিখোঁজ হাজতি মো. ফরহাদ হোসেন রুবেল নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার মীরেরকান্দি গ্রামের শুক্কুর আলী ভাণ্ডারির ছেলে।

আপনার ভালো লাগতে পারে এমন আরো কিছু খবর